শত্রুতামি ও ষড়যন্ত্র জন্য গালিবের নাম ব্যবহার করে আমাদের অপবাদ দেওয়া হচ্ছে: আবু রায়হান

প্রকাশিত: 11:22 PM, March 25, 2020

গালিব বিন আজাদ নামক পেইজ থেকে কয়েকটি পোস্ট ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে, যা ইতিমধ্যে দেশের সকল ইসলামি সংগীত প্রেমিদের মাঝে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রুপ ধারন করছে।

‘কলরব শিল্পীদের পথভ্রষ্টতা ও নারী কেলেঙ্কারি’ নিয়ে একটা পোস্টের ব্যাপারে কলরবের আবু রায়হানের সাথে টাইমস রিপোর্ট টোয়েন্টি ফোরের পক্ষ থেকে ফোন যোগাযোগ হয়।

আবু রায়হানের কাছে এমন পোস্টের সত্যতা কতটু জানতে চাইলে, আবু রায়হান টাইমস রিপোর্ট টোয়েন্টি ফোরকে জানান,

প্রথমত কথা হচ্ছে, গালিব বিন আজাদ নামক পেইজটা গালিবের নয়, গালিব আপাদত পড়াশোনা করে। গালিব ফোন বা ল্যাপটপ কিংবা কম্পিউটার কিছু চালায় না। এবং তার কোন নিজের ফেসবুক আইডি ও নাই।

দ্বিতীয় কথা হচ্ছে, পূর্বে আমাদের সাথে যে ধরনের শত্রুতামি বা বাজে ধরনের ষড়যন্ত্র হইছে ঠিক সেগুলারই একটা বহিঃপ্রকাশ।

তিনি আরো জানান, গালিবের ছুটি যখন শেষ হবে, তখন গালিব একটি ভিডিও বক্তব্যের মধ্যমে বিষয় পরিস্কার করবে বলে মন্তব্য করেন।

আবু রায়হানের কাছে আরো জানতে চাওয়া হয়, এখন দেশের সকল মাদ্রাসা এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ, সুতরাং গালিবের কাছ থেকে ভিডিও বক্তব্য নিচ্ছেন না?

এমন প্রশ্নের জবাব আবু রায়হান বলেন, গালিব ছোট ছেলে, তার বয়স একদমই কম সে এত স্পষ্ট এবং সুন্দর ভাষায় কিভাবে লিখতে পারে?
এটা কখনোই তার দ্বারা সম্ভব হতে পারে না।

ভয়েস টাইপ এর ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে আবু রায়হান বলেন, আপনার কি মনে হয় যে, গালিব ভয়েস টাইপ শিখছে?

সর্বশেষ তিনি বলেন গালিব নাজমুল সাহেবের মাদরসায় হেফজ খানায় পড়ে, সেখানে সে সর্বদা আবদ্ধ থাকে এবং তার পক্ষে এই রকম স্ট্যাটাস দেওয়া অসম্ভব।

উল্লেখ্য, এই ফোন আলাপের পর ফেসবুকে কলরবের বদরুজ্জামান এর আইডি থেকে গালিব একটি ভিডিও বার্তা দেয়,  যেখানে সে বলে আমি গালিব আমার কোন ফেসবুক আইডি নেই,  এবং যারা কলরবের বিষয়ে অপপ্রচার করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কলরবের দায়িত্বশীল দের বলা হয়।