আশুলিয়ায় গ্যাসের আগুনে শিশুসহ দগ্ধ ৪, আহত ২

প্রকাশিত: 8:51 AM, June 2, 2021

সাভার প্রতিনিধি

সাভারের আশুলিয়ায় ঘরে গ্যাসের আগুনে শিশুসহ চারজন দগ্ধ হয়েছে। দগ্ধদেরকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ঘরে জমে থাকা গ্যাস আগুনের সংস্পর্শে এলে বিস্ফোরণ হয়।

আশুলিয়ার পল্লীবিদ্যুৎ কবরস্থান রোড এলাকায় হুমায়ন কবিরের বাড়িতে বুধবার ভোর ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলেন ওই বাড়ির ভাড়াটিয়া মো. আউয়াল, তার মেয়ে আট বছরের আফিয়া, স্ত্রী রেনু বেগম এবং বাড়ির আরেক ভাড়াটিয়া আফরোজা বেগম। তারা সবাই পোশাক শ্রমিক ও নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরের বাসিন্দা।

প্রতিবেশী এক নারী জানান, ভোরবেলা হঠাৎ বিস্ফোরণের বিকট আওয়াজে ঘুম ভাঙে সবার। পরে উঠে দেখেন চারদিকে আগুন। ওই ঘরে থাকা চারজনের শরীরে আগুন লাগলে সবাই মিলে নিভিয়ে ফেলেন। পরে ওই চারজনকে হাসপাতালে নেয়া হয়।

তিনি আরও জানান, আগুন নেভাতে গিয়ে আহত হন প্রতিবেশী মো. হাকিম আর তার স্ত্রী আদুরী।

ঢাকা রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল (ডিইপিজেড) ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘ঘটনা ঘটেছে ভোর ৫টার একটু পরে। আমাদের খবর দেয়া হয়েছে আরও পরে।

‘আমরা গিয়ে অগ্নিদগ্ধ চারজনকে বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়েছে বলে জানতে পারি। তবে আরও দুইজন আহতের কথা জানা নেই।’

তিনি বলেন, ‘মনে হচ্ছে গ্যাসের চুলা থেকে কিংবা টয়লেটের গ্যাস ঘরে জমেছিল। ভোরবেলা রান্নার সময় আগুন জ্বালাতে গেলে বিস্ফোরণ ঘটে থাকতে পারে।

এব্যাপারে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন তিতাস গ্যাস, সাভার জোনের কর্মকর্তারা। তিতাস গ্যাসের টেকনিশিয়ান বলেন, গ্যাসের সংযোগটি বৈধ ছিল। তবে গ্যাস সংযোগের কোন ত্রুটি খুজে পাই নি। তার পরেও সাময়িক সময়ের জন্য গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।