আশুলিয়ায় নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের সর্বোচ্চ বিচারের দাবিতে শ্রমিক সংগঠনসমূহের মানববন্ধন

প্রকাশিত: 1:03 PM, October 9, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সাভারের আশুলিয়ায় নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের সর্বোচ্চ বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে আশুলিয়ার শ্রমিক সংগঠনসমূহ।

শুক্রবার (৯ অক্টোবর) সকালে নবীনগর চন্দ্রা মহাসড়কের আশুলিয়া প্রেসক্লাবের সামনে প্রায় ২৪ টি শ্রমিক ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ এই মানববন্ধন করেন।

মানববন্ধনে শ্রমিক নেতারা বলেন, দেশে নারী নির্যাতনের মত ন্যাক্কারজনক ঘটনা দিন দিন বেড়েই চলেছে। এসব নির্যাতনকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড নিশ্চিত করা হলে এই অপরাধের প্রবনতা কমে যেতো। শ্রমিক নেতারা আরও বলেন, এসব ঘটনা প্রভাবশালী মহলের সহযোগীতায় প্রায়ই ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। এসব ঘটনা উদঘাটন করে সাংবাদিকদের জনসম্মুখে আনার দাবি জানান। একই সাথে সংশ্লিষ্ট আইনশৃংখলা বাহিনীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা। যাতে করে আইনের ফাঁক দিয়ে এসব অপরাধীরা ছাড় না পায়।

বাংলাদেশ বস্ত্র ও পোশাক শিল্প শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সারোয়ার হোসেন বলেন, এটা এখন সামাজিক ব্যাধীতে পরিনত হয়েছে। এসব ঘটনা সামাজিক প্রতিরোধের মাধ্যমেই নির্মুল করতে হবে। নতুবা দিন দিন এসব ঘটনা বেড়ে যাবে। আর এই সব ঘটনার সাথে জরিত কোন ব্যাক্তি যেন কোন রাজনৈতিক ছত্র ছায়ায় না থাকতে পারে সেই দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

স্বাধীন বাংলা গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি আল-কামরানের সভাপতিত্বে বাংলাদেশ জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম রনি বলেন, ধর্ষণকারীদের বিচার চাইতে গিয়ে রাজনৈতিক উস্কানিমূলক বক্তব্য দিচ্ছেন, তারা ধর্ষকদের এবং আসল অপরাধীদের আড়াল করার অপচেষ্টা করে যাচ্ছেন। এটা যেহেতু সামাজিক ব্যধিতে পরিনত হয়েছে, সেহেতু সামাজিক প্রতিরোধের মাধ্যমেই এটার প্রতিকার করতে হবে। এই ধর্ষণের কারনে নারী শ্রমিকদের জাগরন, তারা যে দেশের অর্থনীতিতে বিশেষ ভুমিকা রাখে তা বাঁধাগ্রস্ত হবে। কাজেই এসব অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনতে হবে।

শ্রমিকনেতা মঞ্জুরুল ইসলামের সঞ্চালনায় এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় শ্রমিক লীগের সাভার উপজেলা কমিটির সভাপতি শওকত হোসেন, অন্যান্য শ্রমিক ফেডারেশনের নেতাকর্মীর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, তপন সাহা, সৌমিত্র কুমার দাশ, কবির হোসেন, আব্বাস উদ্দিন, রাজু আহম্মেদ, জহির আহম্মেদ, রাকিবুল হাসান সোহাগ, ইমন শিকদার, খোরশেদ আলম, মোবারক হোসেন শাকিল, মিজানুর রহমান, শাহ আলম, কামরুল ইসলাম, আব্দুস সাত্তার, রমজান আলী, পাপিয়া আক্তার, শেখ লালন, শেখ হাসান আলী সহ অন্যান্য নেতা কর্মীরা।