কথা সাহিত্যিক র‌্যাক লিটনের কবিতা

প্রকাশিত: 1:46 PM, July 20, 2020
কথা সাহিত্যিক র‌্যাক লিটন
সেলাই আপা
র‌্যাক লিটন
সেলাই আপা সেলাই আপা
কি করছো তুমি?
কাপড় কেটে, সেলাই কর
করেছো নিজেকে দর্জী।
সেলাই করে জামা বানাও,
বানাও ফ্রোগ, পাঞ্জাবী,
এক বার কি দেখেছো
তোমার পড়োনে কি?
যা বানাও সবই পরের জন্যে,
বাসায় নাওনা কোনটাই সঙ্গে,
ধৈর্য্য তোমার, হৃদয় বড়,
তুমি আসলেই অনেক বড়।
তুমি দেশের সৈনিক, দশের সৈনিক,
সৈনিক তোমার সংসারে,
তোমাকে নিয়ে গর্ব সবার,
ভালবাসে সবাই তোমাকে অন্তরে অন্তরে।
গার্মেন্টস কর্মী।
বিধাতার দেয়া হাত মোর হয়েছে হাতিয়ার,
যা দিয়ে সেলাই করি গার্মেন্টস এর বাহার।
দুটি টাকার রোজগার করি, চালাই গরীবের সংসার,
রপ্তানী করি গার্মেন্টস, অর্জন করি কোটি টাকার পাহাড়।
মোরা সৈনিক দেশ গড়ার কারিগর,
করছি দেশটাকে ধনী, নিজেকে করছি মুক্ত দেনাদার।
নিজের পায়ের উপর দাড়িয়ে করি মোরা কর্ম,
মনে শান্তি বয়ে, বুকে নিয়ে শ্রমিকের ধর্ম।
মোরা শ্রমিক কাজ করি দেশের জন্য,
জন্মে বাংলাদেশে, নিজেকে মনে করি আমি ধন্য।
তাজরিন ফ্যাশন
গার্মেন্টস কর্মী।
খাবার বাটিটি সেরকমই আছে,
সেন্ডেল দুটি সাজানো,
শুধু তুমি নেই আপা,
সবই কি ভুল বোঝানো?
সকাল বেলা বাটি হাতে তুমি
চুমু দিয়েছিলে দুটি গালে,
এখনও তার রেশ কাটেনি,
স্পর্শ রয়ে আছে অন্তরে।
চারিপাশে লাশের মেলা,
তুমি চলছো সাজিয়ে ভেলা,
স্পর্শ পাইনা তোমার,
চলে গেলে আমায় ফেলে,
কেড়ে নিল তোমায়,
আগুনের ঐ লেলিহান শিখায়।
তুমি থাকবে সবার অন্তরে,
বিশ্ববাসি স্বরণ করবে তোমায়,
প্রতি বছর, বছরে।